উদয়পুরে রাজকীয়ভাবে দিন কাটানোর অনবদ্য অভিজ্ঞতার কথা ভুলব না কোনওদিনও...

Tripoto
Photo of উদয়পুরে রাজকীয়ভাবে দিন কাটানোর অনবদ্য অভিজ্ঞতার কথা ভুলব না কোনওদিনও... 1/9 by Surjatapa Adak

রাজপুত সাম্রাজ্য দর্শনে এসে রাজকীয়ভাবে রাত্রিবাস করার সুপ্ত ইচ্ছা বহুদিন ধরেই মনের মধ্যে লালিত হচ্ছিল। তাই উদয়পুর ভ্রমণে গিয়ে হোটেল ফতেহগড় উদয়পুরকে রাত্রিবাসের ঠিকানা হিসেবে বেছে নিলাম।

Photo of উদয়পুরে রাজকীয়ভাবে দিন কাটানোর অনবদ্য অভিজ্ঞতার কথা ভুলব না কোনওদিনও... 2/9 by Surjatapa Adak

আক্ষরিক অর্থে এই হোটেলটি একটি হেরিটেজ হোটেল হিসেবে পরিচিত। অর্থাৎ পাহাড়ের উপরে হেরিটেজ স্থানে হোটেল কর্তৃপক্ষ নিজেদের পছন্দ মতো ডিজাইন করেছেন।

হোটেলের অন্দরসজ্জা

Photo of উদয়পুরে রাজকীয়ভাবে দিন কাটানোর অনবদ্য অভিজ্ঞতার কথা ভুলব না কোনওদিনও... 3/9 by Surjatapa Adak

হোটেলের সর্বত্রই রাজকীয় আমেজ চোখে পড়ে। সাজানো সোফা, ভিন্টেজ আসবাবপত্র, প্রাচীন মূর্তি, বিশাল তোরণদ্বার সবমিলিয়ে প্রথম দর্শনে অথিতিরা মুগ্ধ হবেই।

Photo of উদয়পুরে রাজকীয়ভাবে দিন কাটানোর অনবদ্য অভিজ্ঞতার কথা ভুলব না কোনওদিনও... 4/9 by Surjatapa Adak

এবার আসি হোটেলের কক্ষ সম্পর্কে । একটু ভালো করে খেয়াল করলে বোঝা যায় নির্মাতাগণ হোটেল নির্মাণের ক্ষেত্রে রাজপুত সংস্কৃতিকে সূক্ষ্মভাবে বজায় রাখার চেষ্টা করেছেন। তাই উন্মুক্ত প্রাঙ্গনে তুলসী মঞ্চের অবস্থান, কাঠের দরজা, কাঠের শয্যা, কাঠের আসবাব পত্র ইত্যাদির মধ্যে রয়েছে প্রাচীনত্বের ছোঁয়া। হোটেলের প্রতিটা কক্ষ বেশ প্রশস্ত এবং কক্ষের ছাদগুলি অনেক উচ্চতাসম্পন্ন।

Photo of উদয়পুরে রাজকীয়ভাবে দিন কাটানোর অনবদ্য অভিজ্ঞতার কথা ভুলব না কোনওদিনও... 5/9 by Surjatapa Adak

তবে এই প্রাচীনত্বের সাথে আধুনিকতার যৌথ মেলবন্ধন রয়েছে। তাই সমস্ত রকম সুযোগ সুবিধা যেমন - এসি, টিভি, মিনিবার, ওয়েস্টার্ন টয়লেট, গিজারও এখানে উপলব্ধ রয়েছে।

কী কী করবেন?

Photo of উদয়পুরে রাজকীয়ভাবে দিন কাটানোর অনবদ্য অভিজ্ঞতার কথা ভুলব না কোনওদিনও... 6/9 by Surjatapa Adak

১. এই হোটেলে রাত্রিবাস করে রাজস্থানী সংস্কৃতিকে উপভোগ করতে পারেন।

২. ওপেন এয়ার সুইমিং পুলে স্নান করতে করতে পাহাড়ে ঘেরা শান্ত এবং সিন্গ্ধ প্রকৃতিকে উপভোগ করতে পারেন।

Photo of উদয়পুরে রাজকীয়ভাবে দিন কাটানোর অনবদ্য অভিজ্ঞতার কথা ভুলব না কোনওদিনও... 7/9 by Surjatapa Adak

৩. এই হোটেল থেকে রাতের আলোয় প্রজ্জলিত উদয়পুর সিটির রূপ দেখে মুগ্ধ হতে পারেন।

৪. রাতের অন্ধকারে ক্যান্ডেল লাইট ডিনারের প্ল্যান করতে পারেন।

অ্যাক্টিভিটি

এই হোটেলের অ্যাক্টিভিটি গুলিকে হোটেলের বিশেষত্বের আখ্যা দেওয়া যেতে পারে। হোটেল ফতেহগড়ের অ্যাক্টিভিটি গুলি হলো -

১. ভিন্টেজ গাড়ি সংকলন

Photo of উদয়পুরে রাজকীয়ভাবে দিন কাটানোর অনবদ্য অভিজ্ঞতার কথা ভুলব না কোনওদিনও... 8/9 by Surjatapa Adak

ফতেহগড় হোটেলের প্রধান আকর্ষণ হলো ভিন্টেজ গাড়ি। এই গাড়ি গুলির মধ্যে মার্সিডিস, জাগুয়ার, ডায়মলার ইত্যাদি সংকলন রয়েছে।

২. জিপ লাইনিং

পর্যটকদের মনোরঞ্জনের জন্য এখানে জিপ লাইনিং -এর ব্যবস্থা রয়েছে। এই জিপ লাইনিং এর সাহায্যে উদয়পুর শহর, সজ্জনগড় প্যালেস, উদয়পুর সিটি প্যালেস, ফতেহগড় এর সুন্দর দৃশ্য- এর সাক্ষী থাকতে পারেন।

৩. সানসেট পয়েন্ট

Photo of উদয়পুরে রাজকীয়ভাবে দিন কাটানোর অনবদ্য অভিজ্ঞতার কথা ভুলব না কোনওদিনও... 9/9 by Surjatapa Adak

হোটেল ফতেহগড়ের সানসেট টেরাস থেকে সূর্যাস্ত উপভোগ করতে পারেন।

৪. এছাড়াও এখানে বার্ড ওয়াচিং, যোগা ক্লাস, জিপ সাফারি, ইন্ডোর গেমস এর সুসজ্জিত ব্যাবস্থাপনা রয়েছে।

খরচ - হোটেল ফতেহগড় উদয়পুরে রাত্রিবাসের খরচ মোটামুটি ৬০০০ টাকা থেকে শুরু। ( সময় বিশেষে পরিবর্তনযোগ্য )

ঠিকানা - সিশার্মা, উদয়পুর, রাজস্থান -৩১৩০০১

নিজের বেড়ানোর অভিজ্ঞতা ট্রিপোটোর সঙ্গে ভাগ করে নিন আর সারা বিশ্ব জুড়ে অসংখ্য পর্যটকদের অনুপ্রাণিত করুন।

বিনামূল্যে বেড়াতে যেতে চান? ক্রেডিট জমা করুন আর ট্রিপোটোর হোটেল স্টে আর ভেকেশন প্যাকেজে সেগুলো ব্যবহার করুন।