সিকিম ঘুরতে যাওয়ার প্ল্যানিং করছেন? তাহলে যেন কোনওভাবেই মিস না হয় এই গ্লাস স্কাইওয়ার্ক...

Tripoto

পাহাড়, সমুদ্র আর প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের পাশাপাশি আপনি যদি দেশ-বিদেশের বিভিন্ন প্রান্তে অবস্থিত এবং নির্মিত কাঁচের সেতুগুলো দেখে মনে মনে ইচ্ছা বা স্বপ্ন দেখে থাকেন যে, এরকমই কোনও কাঁচের সেতু বরাবর হেঁটে যাওয়ার... তাহলে আপনার মনের সুপ্ত সেই ইচ্ছা পূরণ করবে, সিকিমের পেলিং-এ অবস্থিত ভারতের প্রথম কাঁচের স্কাইওয়ার্কটি... সম্প্রতি চালু হওয়া এই স্কাইওয়ার্কটি কিন্তু ইতিমধ্যে ভ্রমণকারীদের মধ্যে বিশেষভাবে জনপ্রিয় একথা বলতেই হবে। সংবাদপত্র এবং অন্যান্য বিভিন্ন প্রতিবেদনেও চোখে পড়ছে এর জনপ্রিয়তা।

এই প্রসঙ্গে অবশ্যই বলতে হবে, সিকিমে অবস্থিত চেনেরজিগের ১৩৭ ফুট উচ্চতাবিশিষ্ট মূর্তিটি, যা উত্তর-পূর্ব ভারতের চতুর্থ বৃহত্তম মূর্তি হিসেবে বিশেষত, স্কাইওয়াকটি থেকে আপনি অনায়াসেই মূর্তিটি দেখতে পারবেন, একইসঙ্গে হিমালয় পর্বতের সৌন্দর্য যেন এক উপরি পাওনা বটে।

Photo of সিকিম ঘুরতে যাওয়ার প্ল্যানিং করছেন? তাহলে যেন কোনওভাবেই মিস না হয় এই গ্লাস স্কাইওয়ার্ক... 1/1 by Never ending footsteps
সিকিম স্কাইওয়ার্কের সৌন্দর্যই আলাদা (ছবি সংগৃহীত)

স্কাইওয়ার্কটি প্রথম ২০১৮ সালে উদ্বোধন করা হয়েছিল, কিন্তু মাঝে করোনা পরিস্থিতির কারণে এবং অন্যান্য নানা কারণে স্কাইওয়ার্কটি সেইভাবে পর্যটকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারে না, তবে সম্প্রতি এর জনপ্রিয়তা বেড়েছে এবং হাজার হাজার পর্যটক ইতিমধ্যে এই স্কাইওয়াকটি ঘুরে দেখার এবং একইসঙ্গে এর নৈসর্গিক প্রাকৃতিক পরিবেশ অনুভব করার সুযোগ পেয়েছে। সর্বোপরি, একথা বলাই বাহুল্য যে, কোনও ব্যক্তিই এইরকম উচ্চতায় থেকে মন্ত্রমুগ্ধ দৃষ্টিতে এর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে চাইবে...

তদুপরি, এটি একটি ফটোগ্রাফারের স্বর্গ হিসেবে বর্ণনা করলেও খুব একটা ভুল হবে না, এমনকি আপনি স্কাইওয়ার্কের পাশ দিয়ে প্রবাহিত তিস্তা এবং রঙ্গিত নদীও প্রত্যক্ষ করতে পারেন যা এখানকার সৌন্দর্যকে বাড়িয়ে তোলে এবং এটিকে আরও স্বপ্নময় করে তুলেছে।

কীভাবে যাবেন ?

পেলিং শহর থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে অবস্থিত স্কাইওয়ার্কটি সমস্ত দিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকে। যারা বেড়াতে চান তারা ৫০ টাকা মূল্যের টিকিট কিনে প্রবেশ করতে পারেন।

বলা বাহুল্য যে আপনার সিকিমের ভ্রমণ ভারতের প্রথম কাঁচের স্কাইওয়াকের দর্শন ব্যতীত অসম্পূর্ণ থাকবে।

এদিকে, শীঘ্রই হায়দরাবাদে আরও একটি গ্লাসের স্কাইওয়ার্ক চালু করার প্রস্তুতি রয়েছে।

নিজের বেড়ানোর অভিজ্ঞতা ট্রিপোটোর সঙ্গে ভাগ করে নিন আর সারা বিশ্ব জুড়ে অসংখ্য পর্যটকদের অনুপ্রাণিত করুন।

বিনামূল্যে বেড়াতে যেতে চান? ক্রেডিট জমা করুন আর ট্রিপোটোর হোটেল স্টে আর ভেকেশন প্যাকেজে সেগুলো ব্যাবহার করুন।