এক অপরূপ ট্রেকিং কথা... পাহাড় ঘেরা সিকিমের পথে

Tripoto

ট্রেকিং শব্দটার সঙ্গে আদ্যোপান্ত জুড়ে রয়েছে একধরনের অ্যাডভেঞ্চারের কথা, ছড়িয়ে রয়েছে বিস্ময় এক যাত্রাপথের গল্প শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত। ট্রেকিং-বিষয়টার সঙ্গে আমরা কম-বেশি পরিচিত হলেও এই আলোচনা পরিসরে আমরা সিকিমের বেশ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য ট্রেকিং পথের কথা শোনাব।

Photo of এক অপরূপ ট্রেকিং কথা... পাহাড় ঘেরা সিকিমের পথে 1/1 by Never ending footsteps
বার্সে রডোডেনড্রন স্যাঙ্কচুয়ারির ছবি (সৌজন্য : ফ্লিকার)

বার্সে রডোডেনড্রন স্যাঙ্কচুয়ারি

বার্সে রডোডেনড্রন অভয়ারণ্যটি দক্ষিণে সিঙ্গালিলা জাতীয় উদ্যান এবং উত্তরে কাঞ্চনজঙ্ঘা বায়োস্ফিয়ার রিজার্ভের মধ্যে অবস্থিত এবং এটি সিকিমের সবচেয়ে অফ বিট ট্রেকিং এরিয়া বা অঞ্চল বলেও বিশেষভাবে পরিচিত। প্রায় ১০০ বর্গকিলোমিটার অঞ্চল জুড়ে এই বার্সে স্যাঙ্কচুয়ারিটি বিস্তৃত। সমতলভূমি থেকে ২,২০০ মিটার থেকে ৪,১০০ মিটার উচ্চতায় বসে সামান্য উষ্ণ পরিবেশের উপস্থিতি আপনি অনুভব করতে পারবেন। পার্কের মধ্য দিয়ে দীর্ঘ আট দিনের ট্রেকের যাত্রার মোটামুটি প্ল্যানিং করতে পারবেন। ট্রেকিং-এর এই সময়টুকুতে আপনাকে সঙ্গ দেবে ওক এবং পাহাড়ি সিলভার ফার বনভূমির অপরূপ নৈসর্গিক দৃশ্য। সঙ্গে অর্কিড, ফার্ন এবং পাহাড়ি মসের সংযোগ তো অবশ্যই রয়েছে। ভারতে ট্রেকিং পথগুলির মধ্যে যেগুলো বিশেষভাবে জনপ্রিয়, তার মধ্যে বার্সে রডোডেনড্রেন স্যাঙ্কচুয়ারি হল অন্যতম, কারণ এই ট্রেকিং পথের শেষে রয়েছে র়ডোডেনড্রেনের অপরূপ নৈসর্গিক দৃশ্য।

কোথায় আছে

সিকিমের এই ট্রেকিং বেসক্যাম্পটি ওখরে সোম্বরেতে অবস্থিত। গ্যাংটক থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার দূরে, এটি অবস্থিত। আপনাকে দক্ষিণ সিকিমের জোড়থাং ভ্রমণ করতে হবে এবং ওখরে পর্যন্ত যেতে হবে, যেখানে আপনি রাত্রিতে থাকবেন, জোড়থাং থেকে ওখরে পৌঁছতে আপনার তিন ঘণ্টা মতো সময় লাগবে।

পাহাড়ি গাছ-গাছালির এক অপরূপ সৌন্দর্য (ছবি সৌজন্যে : ফ্লিকার)

Photo of Barsey Rhododendron Sanctuary, Sikkim, India by Never ending footsteps

বাগডোগরা বিমানবন্দর থেকে সোজা সোম্বেরেতে গিয়ে আপনি পৌঁছে যাবেন, এটি প্রায় একশ কিলোমিটার দূরত্বে এটি অবস্থিত। যেতে সময় লাগবে প্রায় চার ঘণ্টা। রাত্রে থাকুন সোম্বেরেতেই।

সোম্বরের ছবি (সৌজন্যে : স্বপ্না থারানি, ফ্লিকার)

Photo of Sombaria, Sikkim, India by Never ending footsteps

হিলি থেকে প্রায় ঘণ্টা দুইয়ের দূরত্বের মধ্যেই রয়েছে এই সোম্বরে। এই ট্রেকটি হিলি থেকে শুরু হয়ে আপনাকে পাহাড়ি পথের মধ্য দিয়ে নিয়ে যাবে, যা বাঁশগাছের সারি এবং রডোডেনড্রন শোভিত। লাল বর্ণের রডোডেনড্রনের শোভা আপনাকে মুগ্ধ করতে বাধ্য। পাহাড়ি পাখিদের কলকাকলি আপনাকে মুগ্ধ করবে। এই মুগ্ধতার রেশটুকু নিয়েই আপনি বার্সিতে পৌঁছে যাবেন, যেখানে আপনি মধ্যাহ্নভোজন করবেন এবং তারপরে রাতের জন্য লাসুনে ক্যাম্পসাইট বানাতে পারেন।

পাহাড় ঘেরা প্রকৃতির মনোরম পরিবেশ (ছবি সৌজন্যে : সুপ্লব দেবনাথ, ফ্লিকার)

Photo of Hilley, Sikkim, India by Never ending footsteps

সিঙ্গলিলা রেঞ্জ, সিকিম

কাঞ্চনজঙ্ঘা শৃঙ্গ এই যাত্রাপথে আপনার সহচর হয়ে উঠবে, এইভাবেই আপনি গিয়ে পৌঁছবেন থুলো ধাপ উপত্যকা। এটি হিমালয়ের লাল পান্ডাদের নিজেদের আড়াল করার অন্যতম প্রধান স্থান হল এটি। এই ক্যাম্পসাইটটি সিঙ্গালিলা রেঞ্জ ট্রেকিং ট্রেলের উপরে অবস্থিত।

পাহাড়ি উপত্যকার একটি ছবি (সৌজন্যে : ফ্লিকার)

Photo of Singālila Range, Sikkim by Never ending footsteps

উতরে, সিকিম

নির্ধারিত উতরে গ্রামে চূড়ান্ত অবতারণার পরে, আপনি প্রত্যক্ষ করবেন বনৌষধি গাছগুলির সঙ্গে মিশ্রিত এক ঘন চারণভূমি। এই চারণভূমির সৌন্দর্য আপনাকে মুগ্ধ করতে বাধ্য, উপত্যকায় মধ্যাহ্নভোজের পরে, আপনি চলে যেতে পারেন দারাপ গ্রামে। যেখানেই আপনি রাতে অবস্থান করবেন।

ট্রেকিং পথের সৌন্দর্য ( ছবি সৌজন্যে : প্রণব ভাসিন, ফ্লিকার)

Photo of Uttarey, Sikkim, India by Never ending footsteps

পেলিং, সিকিম

খেচোপালরির পথে শুরু হোক আপনার যাত্রা। মোহনীয় হ্রদ এবং পাইন বন পরিবৃত এই অঞ্চল ঘিরে বহু লোককাহিনি প্রচলিত রয়েছে, যা আপনাকে মুগ্ধ করবে। সন্ধ্যায় ইউকসোমে পৌঁছে, পেমায়াংটসে মঠটিতে যেতে পারেন।

হ্রদের মনোরম সৌন্দর্য (ছবি সৌজন্যে : ফ্লিকার)

Photo of Pelling, Sikkim, India by Never ending footsteps

থাকার ব্যবস্থা

দ্য ক্যিলখোর ইন, ওখরে (The kyilkhor inn, Okhrey)-তে আপনি থাকতে পারেন। সমস্ত মৌলিক সুযোগসুবিধাগুলি এক্ষেত্রে সরবরাহ করা হয়ে থাকে। বার্সে রডোডেনড্রন অভয়ারণ্য থেকে এটি প্রায় ছয় কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

ট্রেকিং পথের বিভিন্ন সুবিধা-অসুবিধা

পশ্চিম সিকিমের প্রজাপতির আকারের এই ট্রেকিং পথের যাত্রাপথটি, প্রায় ৩৫ কিলোমিটার স্থান জুড়ে বিস্তৃত এবং আপনার পথে আপনি গোর্খে, রামমাম এবং শ্রীখোলার লার্জ দার্জিলিং গ্রামগুলির মধ্য দিয়ে যাবেন। প্রায় আট দিন এবং সাত রাত ধরে দীর্ঘ যাত্রাপথের শেষে আপনি গিয়ে পৌঁছে যাবেন ১০,০০০ ফিট উচ্চতায়, এই বার্সেই হল আপনার সর্বোচ্চ পয়েন্ট।

ডিআইওয়াই কিংবা ডিআইওয়াই নয়

বার্সে রডোডেনড্রন স্যাঙ্কচুয়ারির প্রবেশপথ (ছবি সৌজন্যে : স্বপ্না থারানি)

Photo of এক অপরূপ ট্রেকিং কথা... পাহাড় ঘেরা সিকিমের পথে by Never ending footsteps

সিকিমে অনেকগুলি ডিআইওয়াই ট্রেক রয়েছে এবং বার্সের বাইরেও আপনি চাইলে আপনার ট্রেকিং পথটিকে পরিচালনা করতে পারবেন, এটি কোনও স্থানীয় ব্যক্তি বা গাইড আপনাকে নির্দিষ্ট কয়েকটি পথের নির্দেশ দিতে পারবেন এবং তাঁবু এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় বিষয়গুলো সম্পর্কেও আপনাকে সহায়তা করতে পারেন। আপনি যে পথটি অতিক্রম করছেন, সেখানে প্রায় প্রতিটি গ্রামেই (প্রতিদিন ৫00 টাকার বিনিময়ে) গাইড খুঁজে পাওয়া বেশ সহজ। তবে ট্র্যাভেল এজেন্টের মাধ্যমে বার্সিতে প্রবেশ করাটাই ভাল।

বার্সে রডোডেনড্রেন ট্রেক বিভিন্ন ট্যাভেল এজেন্সি পরিচালনা করে থাকেন

কিপেপো (Kipepo)- যোগাযোগের নম্বর- +৯১ ৯৯৩০০০২৪১২

শিখর (Shikhar)- যোগাযোগের নম্বর- +৯১(০)১১৪১৩২২৯৪০

মোটামুটি খরচ

আপনি কিপেপো-র সঙ্গে ভ্রমণের পরিকল্পনা করলে বাগডোগরা থেকে আপনার যাত্রাপথের শুরু এবং শেষ হবে। ব্যক্তিপিছু আপনার প্রায় ২৭,০০০ টাকা খরচ হতে পারে এক্ষেত্রে।

কখন এটি করতে হবে

সিকিমের পাহাড়ি পথে ট্রেকিং-এর জন্য আদর্শ মাসগুলি মার্চ থেকে মে মাসের মধ্যেই সাধারণত হয়ে থাকে। এই সময়কালে পাহাড়জোড়া রডোডেনড্রনের শোভা, স্নিগ্ধতা আপনাকে মুগ্ধ করতে বাধ্য। জুন থেকে সেপ্টেম্বর সিকিমে বর্ষা নিয়ে আসে, ট্রেলটি বেশ পিচ্ছিল এবং ভেজা হয়ে যায়। এই ট্রেকের দ্বিতীয় মরসুমটি অক্টোবর থেকে শুরু হয়, ডিসেম্বর অবধি পুরোপুরি স্থায়ি হয়। কাঞ্চনজঙ্ঘা এবং তার পার্শ্ববর্তী তুষারাবৃত শৃঙ্গগুলি প্রায় প্রতিদিনই দৃশ্যমান হয়, কারণ দিনগুলি পরিষ্কার থাকে এবং এই মাসগুলিতে খুব কমই কুয়াশা দেখতে পাওয়া যায়।

যাত্রাপথের বিবরণী

ট্রেকিং পথের ছবি ( সৌজন্যে: স্বপ্না থারানি, ফ্লিকার)

Photo of এক অপরূপ ট্রেকিং কথা... পাহাড় ঘেরা সিকিমের পথে by Never ending footsteps

আট দিনের দীর্ঘ ট্রেকের বেসক্যাম্পটি পশ্চিম সিকিমের সোম্বরে (সরেং নামেও পরিচিত)। উত্তরে গেটের কাছে এসে পৌঁছেছে। সোমবারে থেকে কয়েক ঘন্টা দূরে হিলি রয়েছে, যেখান থেকে ট্র্যাকটি শুরু হয়েছিল। প্রথম স্টপটি বার্সিতে হবে, পৌঁছে যাওয়ার পরে আপনি লাসুনে পাড়ি দিয়েছেন। জোড়বোটিতে আরোহণটি বার্সার ট্রেইলের দীর্ঘতম প্রসারিত। এরপরে থুলো ধাপ উপত্যকাটি ২,৮০০ মিটার উঁচুতে অবস্থিত, এর মধ্য দিয়ে চেওয়া ভানজ্যাংয়ের উঁচু পথটিতে আরোহণ শুরু হয়। চেওয়া থেকে আপনি আমাদের শেষ স্টপ, উত্তরে যাবেন, এটি ইন্দো – নেপাল সীমান্তের প্রবেশদ্বার।

বার্সি রোডোডেনড্রন ট্রেকের জন্য এটিই রুট:

বাগডোগরা - সোম্বরে - হিলি - লাসুন - বার্সে - জোরেবোটে - থুলো ধাপ - চেওয়া - উত্তরে - দারাপ - বাগডোগারা

প্রথম দিন

সোম্বরে

সময়কাল: ৬ ঘন্টা ৩০ মিনিট

উচ্চতা: ২৯৪০ মিটার

দ্বিতীয় দিন

হিলি, পশ্চিম সিকিম

সময়কাল: ৫ ঘণ্টা

উচ্চতা: ৩০৯৪ মিটার

তৃতীয় দিন

তৃতীয় দিনটি সম্পূর্ণ অপেক্ষাকৃত সহজ। যদিও পথ খুব দীর্ঘ। আপনি জোরেবোটির ম্যাজেন্টা-হিউড রডোডেনড্রন আরবোরিয়ম বনের মধ্য দিয়ে হাঁটবেন, একই সঙ্গে আশ-পাশের প্রকৃতির মুগ্ধতা আপনাকে প্রভাবিত করবে। কাঞ্চনজঙ্ঘা পরিসরের দুর্দান্ত দৃশ্য সূর্যাস্ত এবং সূর্যোদয়েও আপনি উপভোগ করতে পারবেন এর সঙ্গে সঙ্গেই। রাতে এখানেই তাঁবুতে ক্যাম্প করে থাকুন।

সময়কাল: ৭ ঘণ্টা

উচ্চতা: ৩১২৫ মিটার

চতুর্থ দিন

সময়কাল: ৫ ঘণ্টা

উচ্চতা: ৩,১৬০ মিটার

পঞ্চম দিন

চেভা ভ্যানজ্যাং-এর ইন্দো-নেপাল সীমান্ত ফাঁড়িতে এই খাড়া চূড়াটি আপনাকে ঘন রডোডেনড্রন সেটোসাম গুল্মের মধ্য দিয়ে নিয়ে যাবে। চেওয়া ভ্যানজিয়াং শব্দটি চিওয়া-ফ্যাংজংয়ের থেকে উদ্ভূত, যাকে স্থানীয় লিম্বু ভাষায় "উঁকি মারা উপত্যকা" বলেও চিহ্নিত করতে পারি। মূলত একটি পার্বত্য পথ, চেওয়া ইন্দো-নেপাল সীমান্তের একটি অংশ এবং এটি পশ্চিম সিকিমের চূড়ান্ত প্রান্তে অবস্থিত গ্রামগুলিকে নেপালের পূর্ব প্রান্তের সাথে সংযুক্ত একটি বাণিজ্য পথ হিসাবে কাজ করে। এই চেওয়াতেও রাতে থাকার ব্যবস্থা করতে হবে।

সময়কাল: ৫ ঘণ্টা

উচ্চতা: ২৬২১ মিটার

ষষ্ঠ দিন

সময়কাল: ৪ ঘণ্টা

উচ্চতা: ২০৫০ মিটার

সপ্তম দিন

অষ্টম দিন

বাড়ি ফেরার জন্য আপনাকে বাগডোগরা বিমানবন্দরে নামিয়ে দেওয়া হবে।

কী প্যাক করবেন

আপনি যদি মার্চের মার্চ মাসে রডোডেনড্রন ফুলের মাসগুলিতে ট্রেকের পরিকল্পনা করেন তবে হালকা গরম পোশাক, ট্র্যাকিংয়ের জুতো, অতিরিক্ত মোজা, রেইনকোট এবং ছাতা প্যাক করবেন অতি অবশ্যই। আর শীতের মরসুমে আপনি যদি ভ্রমণ করেন তাহলে প্রয়োজনীয় উলের বা গরম পোশাক, শক্ত জুতো, গ্লাভস, ক্যাপ এবং স্লিপিং ব্যাগগুলি অবশ্যই প্যাক করবেন।

নিজের বেড়ানোর অভিজ্ঞতা ট্রিপোটোর সঙ্গে ভাগ করে নিন আর সারা বিশ্ব জুড়ে অসংখ্য পর্যটকদের অনুপ্রাণিত করুন।

বিনামূল্যে বেড়াতে যেতে চান? ক্রেডিট জমা করুন আর ট্রিপোটোর হোটেল স্টে আর ভেকেশন প্যাকেজে সেগুলো ব্যাবহার করুন

(এটি একটি অনুবাদকৃত আর্টিকেল। আসল আর্টিকেল পড়তে এখানে ক্লিক করুন!)