ম্যানগ্রোভ অরণ্যের কথা, ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে...

Tripoto
Photo of ম্যানগ্রোভ অরণ্যের কথা, ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে... 1/2 by Surjatapa Adak

বর্ণময় ভারতের প্রকৃতির মধ্যে রয়েছে নানান রূপসজ্জা । তুষারশুভ্র হিমালয় কিংবা দক্ষিণে সাগরের শোভা আমাদের সকলকেই মুগ্ধ করে । তবে ভারতে পর্যটনের ক্ষেত্রে ম্যানগ্রোভ অরণ্য নতুন দিগন্ত খুলে দিয়েছে । তাই কিছুদিনের ছুটি নিয়ে ভারতের ম্যানগ্রোভ অরণ্যগুলির সঙ্গে আলাপচারিতা সেরে নিতে পারেন ।

ম্যানগ্রোভ অরণ্য কী?

Photo of ম্যানগ্রোভ অরণ্যের কথা, ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে... 2/2 by Surjatapa Adak

উপকূলবর্তী অঞ্চলে অবস্থিত ছোট ছোট গাছের সমাহার হলো ম্যানগ্রোভ অরণ্য । এই অরণ্যের প্রধান বৈশিষ্ট্য হল - এই গাছগুলি কার্বন সংরক্ষণ করে উপকূলীয় অঞ্চলের বাস্তুতন্ত্রের সামঞ্জস্যতাকে রক্ষা করে ।

ভারতের বিখ্যাত ম্যানগ্রোভ অঞ্চল:

১. সুন্দরবন (পশ্চিমবঙ্গ)

Photo of Sunderban Tiger View Point, Gosaba, West Bengal, India by Surjatapa Adak

২.পিছাভরম ম্যানগ্রোভ অরণ্য ( তামিলনাড়ু )

Photo of Pichavaram Mangrove Forest, Post, Vadakku Pichavaram, Pichavaram, Tamil Nadu, India by Surjatapa Adak

৩. গোদাবরী- কৃষ্ণা ম্যানগ্রোভ অরণ্য

Photo of GODAVARI KRISHNA CO-OP SOCIETY LTD,AS NAGAR, main road, beside sapthagiri grameena bank, Ajit Singh Nagar, PNT Colony, Vijayawada, Andhra Pradesh, India by Surjatapa Adak

৪. ভিতরকণিকা ম্যানগ্রোভ অরণ্য

Photo of Bhitarkanika National Park, Paramanandapur, Odisha, India by Surjatapa Adak

ম্যানগ্রোভ অরণ্য প্রসঙ্গে আলোচনা শুরু করলে সুন্দরবনের কথা না বললেই নয় । গঙ্গা, ব্রহ্মপুত্র, মেঘনা এবং বঙ্গোপসাগরের সংযোগস্থলে গড়ে ওঠা এই ম্যানগ্রোভ অরণ্যটি বিশ্বের সর্ববৃহৎ ম্যানগ্রোভ অরণ্য হিসেবে পরিচিত । এই ম্যানগ্রোভ অঞ্চলটি বহু লুপ্তপ্রায় উদ্ভিদ এবং প্রাণের মূল বাসস্থান । তবে সুন্দরবন ভ্রমণের মূল উদ্দেশ্যে হল - রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার।

দর্শনীয় স্থান - সুন্দরবনের দর্শনীয় স্থানগুলি হল - সুধন্যখালি, সজনেখালি, সুন্দরবন ন্যাশনাল পার্ক, ইত্যাদি ।

কীভাবে যাবেন?

বিমানে - কলকাতা বিমানবন্দর থেকে গাড়ি ধরে ৯৫ কিমি দূরত্ব অতিক্রম করে পৌঁছে যান গদখালী। সেখান থেকে নৌকা ভাড়া করে ঘুরে নিতে পারেন সমগ্র সুন্দরবন অঞ্চল ।

ট্রেনে - ভারতের যেকোনো শহর থেকে পৌঁছে যান কলকাতার শিয়ালদহ স্টেশন । সেখান থেকে ক্যানিং লোকাল ট্রেন ধরে পৌঁছে যান ক্যানিং । এরপর গাড়ি ভাড়া করে পৌঁছে যান গদখালি ।

বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ অরণ্যটি হল - পিছাভরম ম্যানগ্রোভ অরণ্য। এই ম্যানগ্রোভ অরণ্যটি মূলত ভেল্লার এবং কলেরুন নদীর সংযোগস্থলে গড়ে উঠেছে ।এই ম্যানগ্রোভ অরণ্য থেকে প্রকৃতির অসাধারণ দৃশ্যপটের সাক্ষী থাকতে পারেন । নৌকাযাত্রা করে প্রায় ১১০০ হেক্টর এরিয়া ম্যানগ্রোভ অঞ্চল পরিদর্শন করে নিতে পারেন।

দর্শনীয় স্থান - ম্যানগ্রোভ অরণ্য দর্শন করা ছাড়াও মন্দির শহর চিদাম্বরম, ম্যানগ্রোভ অরণ্যের অদূরে বঙ্গপোসাগর দর্শন করে নিতে পারেন ।

কীভাবে যাবেন?

ভারতের যে কোনও শহর থেকে পৌঁছে যান পন্ডিচেরি।সেখান থেকে বাস বা গাড়ি চেপে পৌঁছে যান চিদাম্বরম । চিদাম্বরম থেকে বাসে ৩০ - ৪৫ কিমি দূরত্ব অতিক্রম করে পৌঁছে যান পিছাভরম । এখান থেকে সম্পূর্ণ ম্যানগ্রোভ অরণ্য ভ্রমণ করার জন্য নৌকাভাড়া করে নিতে পারেন ।

গোদাবরী এবং কৃষ্ণা নদীর ব-দ্বীপ অঞ্চলে গড়ে উঠেছে গোদাবরী- কৃষ্ণা বা করিঙ্গা ম্যানগ্রোভ অরণ্য । এটি ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ অঞ্চল হিসেবে পরিচিত । অন্ধ্রপ্রদেশে অবস্থিত এই ম্যানগ্রোভ অঞ্চলটি ও বহু লুপ্তপ্রায় প্রাণের প্রধান বাসস্থান ।

দর্শনীয় স্থান - প্রকৃতি এবং ম্যানগ্রোভ অরণ্যের সাথে পরিচয় করার জন্য এই স্থানটি আদর্শ ।এখানে আপনি লুপ্ত প্রায় কচ্ছপের দেখা পাবেন । এছাড়াও করিঙ্গা সাংকচুয়ারি ভ্রমণ করে নিতে পারেন ।

কীভাবে যাবেন?

ভারতের যে কোনও শহর থেকে পৌঁছে যান অন্ধ্রপ্রদেশের কাকিনাদা শহরে । সেখান থেকে গাড়ি ভাড়া করে ১৫কিমি দূরত্ব অতিক্রম করে পৌঁছে যান গন্তব্যে ।

প্রায় ৬৫০ বর্গ কিমি অঞ্চল জুড়ে বিস্তৃত এই ম্যানগ্রোভ অরণ্যটি জলজ প্রাণীদের প্রধান আস্তানা । এই ম্যানগ্রোভ অরণ্যটি ব্রাহ্মনী এবং বৈতরণী নদীর সংযোগ স্থলে গড়ে উঠেছে । এখানে মোট ৬২টি প্রজাতির উদ্ভিদের দেখা পাওয়া যায় ।

দর্শনীয় স্থান - ম্যানগ্রোভ দর্শন ছাড়াও এখানে আপনি অলিভ রিডলে নামক লুপ্তপ্রায় সামদ্রিক কচ্ছপের দেখা পাবেন । এছাড়া ভিতরকণিকা ন্যাশনাল পার্ক দর্শন করে নিতে পারেন ।

কীভাবে যাবেন?

ভারতের যে কোনও শহর থেকে পৌঁছে যান ওড়িশার ভদ্রকে । সেখান থেকে গাড়ি ভাড়া করে পৌঁছে যান চাঁদবালি নদী বন্দর । এই পোর্ট থেকে নৌকা চেপে সম্পূর্ণ ভিতরকণিকা দর্শন করে নিতে পারেন ।

ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট দর্শনের অভিজ্ঞতাটা ঠিক কতটা রোমাঞ্চকর হল কমেন্ট করে লিখে জানাতে কিন্তু ভুলবেন না ।

নিজের বেড়ানোর অভিজ্ঞতা ট্রিপোটোর সঙ্গে ভাগ করে নিন আর সারা বিশ্ব জুড়ে অসংখ্য পর্যটকদের অনুপ্রাণিত করুন।

বিনামূল্যে বেড়াতে যেতে চান? ক্রেডিট জমা করুন আর ট্রিপোটোর হোটেল স্টে আর ভেকেশন প্যাকেজে সেগুলো ব্যবহার করুন।